FAQ

  1. What is a Mutual Fund?

A mutual fund (MF) is a separate legal entity which collects savings from small individual investors and institutions in exchange of partial ownership in that particular MF which is called a Unit (or certificate of ownership in a MF). The accumulated fund raised under a MF is then managed by an asset management company that uses its investment management expertise to invest the fund in a diversified portfolio of IPOs, stocks, bonds and other kinds of permissible investment securities. By doing so, the MF generates investment return over time which is then distributed to all the investors (or unitholders) of the fund in the form of dividends and capital gain/loss. An investor in mutual fund may sell his/her units in the stock market at quoted price or surrender them at net asset value to liquidate the investments.

  1. What are the types of Mutual Fund?

Mutual funds are of two types: Open-end and Close-end.

Open-end funds (also called unit funds) remain open to take new capital from investors over time. Open-end funds don’t have a finite life or tenure; however, an investor or unitholder can surrender or sell his/her units anytime through the asset manager at prevailing net asset value (NAV).

Closed-end funds, on the other hand, are listed in the stock exchange and have a finite life of 10 years in Bangladesh. These kind of fund takes capital from investors only at the time of fund inception (or IPO) and gives the capital back to its investors at the end of the fixed tenure. Since closed-end funds are listed in the stock exchange – their investors can sell the units in the live market at prevailing market prices (which can be significantly different from net asset value).

  1. What are the common benefits of investing in a Mutual Fund?

The benefits of investing in a Mutual Fund are

  • Investment expertise: Mutual Funds are managed by professional fund managers who have sufficient expertise and experience in picking the right stocks/ bonds/ instruments to build a diversified portfolio for generating competitive investment return with limited risk-taking.
  • Better diversification: They efficiently diversify the portfolio by making investment in stocks, bonds, FDRs, Real estates, alternative assets etc. which is tough for a small capital holder.
  • IPO subscriptions: In Bangladesh, mutual funds enjoy a 10% (ten percent) reserved quota for all Initial Public Offerings (IPOs). IPOs in Bangladesh have historically posted much better time-weighted-returns to subscribers and therefore, Unit holders’ access to the reserved IPO subscription quota through mutual fund investments offer value not available otherwise.
  • Economics of scale in trading: Since mutual funds buy and sell securities in large volumes, transaction costs on a per unit basis is much lower than what retail investors may incur if they buy or sell shares through stock brokers.
  • Tax benefits: Investors are eligible for tax rebate depending on the amount invested. Asset Management Companies are required to distribute a percentage of the earning (refer to fund-specific prospectus for exact % and in case of EDGE Bangladesh Mutual Fund, 70% of annual realized earnings) as dividends to investors, out of which up to BDT 25,000 is tax-free. In addition, profits generated by the mutual fund are also tax exempted. More importantly, investments in mutual funds qualify for investment allowance and therefore, lowers tax liability for individual investors.
  • Liquidity: Investors can buy and sell units of open-end fund at prevailing NAV at their convenient time. In other words, open-end funds are liquid income generative investment alternative. However, long-term investments in mutual funds generally yield better investment results than short-term ones.

   

  1. How does a mugenerate profits?

Assets gathered under a mutual fund is invested in different stocks/ bonds/ IPOs/ other permissible securities. As the market prices of these underlying invested stocks, bonds and securities change over time, the mutual fund makes money. Mutual fund also earns from dividend and interest income from the invested securities.

  1. What is the return can I expect?

There is no guaranteed return from investing in traditional mutual funds. Expected return from a mutual fund generally depends on two things- a) quality of the asset management company, and b) risk/return profile of the underlying investment strategy or portfolio (which is provided in the fund prospectus and portfolio statement). However, well managed funds in Bangladesh have historical track record of generating more than 15% annualized return over long-term. Please note that such historical performance may not sustain and does not provide any guidance on return expectation from any mutual funds.

  1. How is investor interest protected in a mutual fund?

Every mutual fund is registered with the Bangladesh Securities & Exchange Commission (BSEC) as a separate legal entity whose financial performance is audited by an independent auditor annually. Each MF has a Trustee, mostly chosen from renowned financial institutions, to look after the interest of the fund investors. There is a Custodian, too, which ensures that all the assets under the mutual fund is kept safe all the time. The asset manager files detail information on the fund activities along with rationale with both the BSEC and the fund Trustee under the rigorous regulatory framework, defined by BSEC’s Mutual Fund Rules 2001, the Trust Deed of the fund and other regulatory directives that come out from time to time.

For the EDGE Bangladesh Mutual Fund, for example, the asset manager (EDGE AMC Limited) publishes the Net Asset Value (NAV) per unit in the company’s Facebook page, its website on every Thursday and on The Financial Express on every Sunday. We also submit Portfolio Statement to the Trustee fortnightly and publish Financial Statements quarterly. All our activities and performances are fully transparent and verified by independent professional service providers like auditor, Trustee and Custodian. 

  1. What is the minimum amount one can invest?

Eligible individual investor can become unit holder by investing minimum of BDT 5,000. For Institution the minimum amount is BDT 50,000.

  1. How much is the management fee? How do the investors in mutual funds pay fees against the services?

Asset management companies earn an annual management fees which is denominated as a % of total asset under management (or fund size) of the mutual fund. BSEC’s Mutual Fund Rules, 2001 defines the asset management fees structure as given below-

Asset Under Management (AUM) (in Crore)Management Fee (as % of AUM, charged annually)
<52.5% p.a
5-252.0% p.a
25-501.5% p.a
>501.0% p.a

Investors in mutual fund do not have to pay the fees explicitly – the fees get deducted from the net asset value of the fund over time.

  1. How can I make profit from investing in Mutual Fund?

The Mutual Fund will take your savings to invest in a portfolio of stocks/ bonds/ other permissible securities. This portfolio of stocks/ bonds/ other securities will go up and down in value as the market prices change in the stock market or the companies pay dividends and interests. Asset management companies like EDGE AMC undertake rigorous investment research on the companies/stocks/ bonds before adding them in the portfolio to maximize the gain from security trading and dividend/ interest income to the fund. Such gains and incomes increase the value of the fund as a whole and as the unitholders are the owners of the fund, their value of investments in the mutual fund also increases automatically.

For example, a Mutual Fund takes 10 million Taka from 50 unitholders to form a fund of 500 million Taka. Hence at the inception of the fund each of the unitholders owns 2% of the fund (derived by dividing a particular unitholder’s investment size with the total size of the fund- by dividing 10 million Taka with 500 million Taka in this instance). Then, after diligent research, the asset manager invests the total fund of 500 million Taka in a portfolio of stocks/ bonds and other securities. The portfolio, after one year from the starting date, generates 12% return and hence, the total value of the assets under the Mutual Fund becomes 560 million Taka with a gain of 60 million Taka (500 million Taka* 12% holding period return). An unitholder who invested at the very inception of the fund still owns the same 2% value of the fund and his/her value of investment increases to 11.2 million Taka (which is 2% of the total asset of the MF at the end of the first year or 560 million Taka). So, the return for the unitholder on his/her investment of 10 million Taka would be 1.2 million Taka or 12%. For simplicity, we assumed no fees or tax in this example.

However, in reality, return on investments for the unitholders will always be return on the Mutual Fund’s portfolio less fees and taxes. And there is no guarantee that Mutual Fund investment portfolio will always generate profit or gain- there can be losses, too.

  1. What about the other costs? Repurchase/ Redemption/ Transfer?

We do not charge such fees. EDGEBDMF units are bought and sold at NAV per unit unless declared otherwise.

  1. What documents are required for registration?

Documents

Quantity

Filled-in unitholder’s registration form

1

Copy of Applicant’s NID/ passport

1

Copy of Nominee’s NID/ passport

1

Applicant’s passport size photograph

2

Nominee’s passport size photograph

1 (endorsed by the applicant on the back-side)

Copy of Applicant’s BO Acknowledgement/ Portfolio Statement

1

Copy of Applicant’s ETIN Certificate

1

Copy of Applicant’s blank cheque leaf copy/ Bank Statement

1

  1. Can we subscribe without coming to your office?

Yes, the whole process can be completed online. An online form is available in the “Contact Us” section of our website. An interested individual only needs to fill in the form and upload the required documents to start the subscription process.

  1. Do I need a BO account and a bank account to invest in Mutual Fund?

Yes. Both accounts are mandatory for investing in Mutual Fund

  1. How can I open a BO Account?

An account can be opened by contacting and obtaining the associated forms from any of the country’s brokerage houses. We can also carry out the process on your behalf if you provide us with the required documents. Brokerage houses charge a maintenance fee per year.

  1. What are the required documents to open a BO?

Listed below are the documents required by brokerage houses. There might be slight variation across brokerage houses.

  • 3 copies of Passport-sized photograph
  • Copy of NID/ Passport
  • Copy of Bank Statement/ Cheque Leaf
  • 2 copies of photograph of nominee (duly attested by A/c holder)
  • Copy of NID of nominee (duly attested by A/c holder)
  1. Is it mandatory to have an E-TIN Certificate?

No. But investors with E-TIN Certificate will get a tax bracket. 10% instead of 15% tax on cash dividend.

  1. How do I deposit my money in a MF?

We receive money for investing in EDGEBDMF through cheque/ pay order/ demand draft addressed to EDGE Bangladesh Mutual Fund. Investors can directly deposit the fund in the designated bank account or transfer through BEFTN or even just send it to our office and we will take care of the rest.

  1. What is investor’s buy/sell price?

The buy/sell price is published online on every Thursday and reported in the daily Financial Express on every Sunday. The price mentioned on Thursday will be the effective buy price from Sunday through Wednesday in the following week. Units are not bought or sold on Thursday.

  1. What is the process for redemption/ surrender or cashing-out investments in the Mutual Fund?

An investor must submit the Unit-Repurchase Form and submit the completed CDBL Transfer Request Form to his/her respective brokerage house. The brokerage house will then contact CDBL and wait for confirmation. Upon receiving confirmation, we will disburse the payment to the redeeming investor through account payee cheque or BEFTN transfer, as per his/her request, within minimum 3 working days.

  1. What is entry load and exit load?

Entry load refers to an additional fee charged on an investor’s initial investment. Exit load is a fee charged when an investor withdraws his/her investment. EDGE Bangladesh Mutual Fund does not impose any of these charges until and unless declared otherwise.

  1. Is there any lock-in period after investing?

No. Investors are free to surrender their units for cash anytime, though that does not yield positive investment result.

  1. How long do I need to wait to receive my money against sale proceed?

Three to Seven working days.

  1. What is your dividend policy?

EDGE Bangladesh Mutual Fund will declare 70% of annual realized earnings as dividends and also offers investors the opportunity to choose between receiving cash dividends and cumulative investment plan (CIP) to compound investment balance by minimizing transaction costs. The latter allows the fund manager to reinvest the dividend in the prevailing investment opportunities.

  1. What is CIP?

An investor can opt for the Cumulative Investment Plan (CIP) as an alternative to receiving cash dividends. The dividend proceeds (less tax) will then be used to purchase additional fund units, thereby increasing the total number units owned by the investor. In a nutshell, unitholders subscribing to CIP, receives additional proportionate number of Mutual Fund units instead of cash every time the Mutual Fund declares cash dividend.

  1. What is a closed period?

The fund units are not traded during the closed period. No buying or selling takes place as this period is used for the preparation and audit of the fund’s financial statements. The dividend distribution process is also initiated during this time.

  1. How long do I need to wait to receive dividend against my investment?

Dividend warrants will be dispatched within 45 days of dividend declaration.

  1. What is a SIP?

Systematic Investment Plan (SIP) allows investors to invest a certain pre-determined amount at a regular interval (monthly, quarterly, yearly etc.). A SIP is a planned approach towards investments and helps to inculcate the habit of savings and building wealth for the future by minimizing market timing risk. Investor can start with a very small amount that is minimum BDT 1,000.

  1. Is SIP available for investing EDGEBDMF?

Yes. We offer SIP for investing in the EDGE Bangladesh Mutual Fund. To invest through SIP, investor needs to make the installment payments on 10th of each month.

  1. What are the benefits of SIP?
  • Develop the habit of disciplined investing
  • Make market timing risk irrelevant for unitholders
  • Reduces overall level of investment risk by Taka-cost averaging
  • Harness the benefit of compounding return over time
  • Highly convenient for any kind of investors with automatic from bank account-to-Mutual Fund transfer facilities, instant liquidity, small investment installment size (of BDT 1,000), and great flexibility
  • Best tool for achieving long-term financial goals
  1. How to invest in SIP?

Step 1: Deciding an installment size

Step 2: Selecting the target Mutual Fund(s) given unitholder’s long-term risk-return objective

Step 3: Fill-in registration form with EDGE AMC submitting all the relevant documents (reference to FAQ 11)

Step 4: Issue initial cheque in the name of EDGE Bangladesh Mutual Fund. EDGE AMC also assists unitholders to set-up an auto-debit bank account facility to ease the recurring fund subscription process- for this the unitholder needs to submit the dully filled and signed BEFTN/ Auto Debit/ General Instruction form to his/her respective bank

Step 5: Confirmation on unit issuance will be sent to unitholders will be sent in 3 business days from each payment date and units of EDGE Bangladesh Mutual Fund will be automatically credited to unitholders’ BO account thereafter

Step 6: Unitholders will get weekly investment statement on each Thursday with updated investment balance. Unitholders can retrieve their transaction history in the fund from EDGE AMC anytime in the business hours or through emails

  1. Is there a minimum investment amount for SIP?

Minimum investment under SIP registration is BDT 1,000.

  1. Is there a minimum lot size for SIP?

In fact, there is no minimum lot size of units under SIP. Any fraction amount remaining will be converted when it sums up to one unit. While surrendering, if remaining amount does not sum up to 1 unit then the remaining amount will be transferred via BEFTN.

  1. What are the payment options for SIP?

Payment in respect of the first installment can be made using a cheque/ pay order/ demand draft. Further payments will be made through Direct Debit facility/ Auto-Debit/ BEFTN transfer.

  1. What happens after SIP maturity?
  • Auto- Renewal: Investors can easily renew the SIP after the maturity period and it will be continued until further notice from the investors.
  • Surrender: As per investor’s decision, the matured amount will be kept as it is in his/her BO account. It can also be transferred to his/her bank account as per choice. We will personally knock investors to execute his/her order.
  • No Auto-renewal and No encashment: Investors can still remain invested after the maturity of SIP if they want. In this case, the matured investment will be count as non-SIP scheme till surrender. Investors themselves take the decision when to surrender the EDGEBDMF units.
  1. Does the SIP allow partial surrender?

Yes. Investors can surrender EDGEBDMF units partially and continue the SIP till maturity.

  1. Does SIP allow investments from Joint investors?

Yes. Unitholders can jointly invest through SIP abiding by same procedures.

  1. Does SIP allow investments from institutional investors?

Yes. Minimum installment for institutional investors is BDT 10,000.

  1. What happens if the 10th of the month is a weekend or holiday?

The Auto-Debit will take place on the following working day on that week’s purchasing price.

  1. What is the maximum amount of SIP installment?

Individuals are allowed to invest BDT 1,000,000 per installment under one registration number. There is no such limitations for institutions.

  1. How to discontinue the SIP?

Investors need to provide an application to the Asset Manager regarding discontinuation of SIP at least 5 working days before the next installment date.

  1. Will there be any fees or penalties for discontinuing the SIP before maturity?

As of now – no additional fees is charged for discontinuing SIP before maturity.

  1. What if investor defaults on their on their auto debit payment?

There are no penalties for such defaults. The default of 3 (two) consecutive installments will result in discontinuation of SIP. If the investor needs to continue the SIP again, s/he has to re-enroll into a SIP.

  1. What if investor wants to top-up his/her installment?

Investors can top-up installment amount; however frequent and big-ticket top-ups are not recommended in a SIP account as doing so can significantly distort the salient features in terms of risk/ return balance of SIP.

  1. Can the investors change his/ her bank account information before the maturity of the SIP?

Yes. Investor must change the bank details at least 5 working days before the maturity date.

  1. Can the investor pay a lump sum amount in advance for SIP?

No. We cannot accept any lump sum amount in advance for SIP. Investors are allowed only to make installment payments every month on 10th.

  1. Can I transfer units to another account?

The Units of the Fund are transferable by way of inheritance/ gift and/ or by specific operation of the law.

  1. Do I receive any proof of purchase after my investment?

Yes, investors get an Acknowledgement slip authorized by at least one of the signatories of the company. The purchased unit will be credited in your BO account after CDBL transfers those to your broker after that you can see the units in your BO statement. 

  1. For how long do I need to remain invested in the fund?

EDGE Bangladesh Mutual Fund do not have any lock-in period which means an investor can buy and sell anytime he wants.

  1. Can NAV or buy/sale prices be lower than the Face Value of the units?

Mutual fund’s NAV has a very positive correlation with the market value of assets. Hence if the market value of the asset goes down, chance is high NAV per unit may decrease and fall below the face value. However given the long-term performance outlook of risky asset classes in a growing economy like Bangladesh, such underperformance should not sustain over long-term.    

  1. How much do you charge as an entry or exit fee?

We do not charge any fees for surrendering or redeeming EDGEBDMF units unless and until declared otherwise at a given point of time.

  1. What is a Unit of a Mutual Fund?

Shares representing the ownership in a mutual fund is generally called a unit. Investors can purchase or redeem units of an open-end fund at the fund’s contemporary NAV per unit.

  1. How is NAV calculated

NAV= Net Assets – Liabilities

Net Assets= Value of all securities in vault + Value of all securities placed in lien + Cash in hand and at bank + Value of all securities receivables + Receivables of proceeds of sale of investments + Dividend receivables net of tax + Interest/profit receivables deposits net of tax + Issue expenses net of amortization expense as on date + Printing, publication and stationery expenses amortized as on date

Liabilities= Value of all securities payable + Payable against purchase of investments + Payable as brokerage and custodial charges + Payable as Trustee fees + All other payable related to printing, publication and stationery + Accrued deferred expenses with regard to management fee, annual fee, audit fee and safe keeping fee.

NAV per unit= Value of NAV/ No of units outstanding

  1. How often do you publish NAV?

EDGE AMC publish the NAV weekly as business closes on each last work-day of the week (which is mostly Thursday) on the company’s website, Facebook page, LinkedIn page, The Financial Express. EDGE AMC also sends out an Investment Account Statement that reports details of the investment in the Fund along with some context on market performance.

  1. Who can invest in MF

Individuals both resident and non-resident, institutions–both local and foreign, mutual funds and collective investment schemes are eligible to subscribe the Units of the Fund.

  1. How do I know whether my money has been invested or not?

Every Unit holder is entitled to receive annual report along with the yearly and half yearly statements of accounts as and when published on the asset management company’s website (www.EDGEAMC.com). Through the published report portfolio allocation can be known.

১. মিউচুয়াল ফান্ড কি?

মিউচুয়াল ফান্ড একটি পৃথক আইনি  সত্তা যা ব্যক্তি ও প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীর কাছ থেকে  অর্থ সংগ্রহ করে সেই অর্থ বিভিন্ন খাতে ডাইভেরসিফিকেশনের মাধ্যমে ঝুকি কমিয়ে বিনিয়োগ করে যা একজন ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীর জন্য করা কস্টসাধ্য। বিনিয়োগকারীরা তাদের অর্থের বিনিময়ে মিউচুয়াল ফান্ডটির আংশিক মালিকানা লাভ করে, যা ইউনিট (অথবা মিউচুয়াল ফান্ডের মালিকানা সার্টিফিকেট) নামে পরিচিত। মিউচুয়াল ফান্ডের মালিকানা প্রতিনিধিত্বকারী শেয়ারগুলিকে এক একটি ইউনিট বলা হয়। মিউচুয়াল ফান্ডের অধীনে সংগ্রহীত অর্থ একজন অ্যাসেট ম্যানেজার বিভিন্ন আইপিও, স্টক, বন্ড এবং অন্যান্য ধরণের অনুমোদিত সিকিউরিটিগুলিতে বিনিয়োগ করে। এভাবে, বিনিয়োগকৃত অর্থ থেকে যে লাভ বা ক্ষতি হয় তা পরে বিনিয়োগকারীদের (ইউনিট হোল্ডারদের) মধ্যে লভ্যাংশ (ডিভিডেন্ড) এবং ইউনিটের মূল্য (যা আর্থিক প্রতিবেদনের পরিভাষায় নেট-সম্পদ-মূল্য বা নেট-অ্যাসেট-ভ্যালু বলা হয়) বৃদ্ধি/হ্রাস-এর মাধ্যমে বিতরণ করা হয়।

উদাহরণস্বরূপ, মিউচুয়াল ফান্ডকে এক বাস্কেট ফলের সাথে তুলনা করা যেতে পারে। ধরুন আপনার কাছে ৫০০/- টাকা আছে যা দিয়ে আপনি ফল কিনতে চান। আপনি দুটি কাজ করতে পারেন। হয়, এক ধরনের ফল বেশি কিনতে পারেন অথবা বিভিন্ন ধরনের ফল অল্প অল্প করে নিতে পারেন। কিন্তু, ৫০০/- দিয়ে আপনার পক্ষে একাধিক ধরণের ফল কেনা সম্ভব না। এখন যদি আপনার মত ১০ জন ব্যক্তি ৫০০/- করে দেয়, তবে সবার টাকা একসাথে করে, বিভিন্ন ধরণের ফল কিনে তা সবার মধ্যে ভাগ করে দেয়া সম্ভব। ঠিক একইভাবে এমন অনেক কোম্পানির শেয়ার আছে যা, যদিও খুব লাভজনক, কিন্তু দাম বেশি হওয়ায় স্বল্প মূলধন বিনিয়োগকারীরা সেই শেয়ার কিনতে পারেননা। কিন্তু, এরূপ অনেক বিনিয়োগকারীর মূলধন একত্রিত করা হলে বড় একটি ফান্ড (মিউচুয়াল ফান্ড) গঠিত হয়, যা দিয়ে বিভিন্ন আকর্ষণীয় খাতের ভালো কোম্পানিসমূহের শেয়ার একইসাথে কেনা সম্ভব হয়। বিভিন্ন খাতের অনেক কোম্পানির শেয়ার একসাথে একই পোর্টফলিওতে থাকে বলে কোন একক খাত বা কোন একটি নির্দিষ্ট কোম্পানির শেয়ারের মূল্য বাজারে কমে গেলেও, পোর্টফলিওর ভ্যালু খুব বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় না। এভাবে সকল বিনিয়োগকারীর সম্মিলিত বিনিয়োগের ফলে বিনিয়োগের ঝুঁকি কমিয়ে প্রত্যেকে লাভবান হন। 

২. মিউচুয়াল ফান্ডের কয় ধরনের হয়ে থাকে?

মিউচুয়াল ফান্ড দুই ধরনের: ক্লোজ-এন্ড এবং ওপেন-এন্ড ।

ক্লোজড-এন্ড ফান্ডগুলি স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাবদ্ধ এবং বাংলাদেশে দশ বছরের সীমাবদ্ধ মেয়াদ রয়েছে। এই ধরনের মিউচুয়াল ফান্ডগুলি শুধুমাত্র ফান্ড গঠনের সময় বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে মূলধন নেয় এবং নির্দিষ্ট মেয়াদের শেষে এটি বিনিয়োগকারীদের কাছে মূলধন ফেরত দেয়। অর্থাৎ ক্লোজ-এন্ড ফান্ডের ইউনিট সংখ্যা কখন পরিবর্তন হয় না। ক্লোজ-এন্ড ফান্ডগুলি স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত থাকে এবং অন্যান্য তালিকাভুক্ত শেয়ারের মতই এদের কেনাবেচা করা যায়। অর্থাৎ বিনিয়োগকারীরা বর্তমান বাজার মূল্যে ক্লোজড-এন্ড ফান্ডের ইউনিট ব্রোকারেজ হাউসের মাধ্যমে সরাসরি বাজার থেকে কিনতে বা বিক্রি করতে পারে। উল্লেখ্য, এক্ষেত্রে এসব ইউনিটের বাজারমুল্য নেট-সম্পদ-মান থেকে উল্লেখযোগ্যভাবে ভিন্ন হতে পারে।অন্যদিকে ওপেন-এন্ড ফান্ড (ইউনিট ফান্ড নামেও পরিচিত) এর নির্দিষ্ট সীমাবদ্ধ মেয়াদ নেই। এরা সময়ের সাথে সাথে বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে নতুন মূলধন নিতে পারে। যখনই কোন বিনিয়োগকারী  ওপেন-এন্ড ফান্ডের ইউনিট কিনতে চায়, অ্যাসেট ম্যানেজার ওই বিনিয়োগকারী প্রদত্ত টাকার বিপরিতে নতুন ইউনিট ইস্যু  করে। ওপেন-এন্ড ফান্ড স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাবদ্ধ থাকে না তাই ইউনিট হোল্ডারগণ যেকোনো সময় বিদ্যমান নেট সম্পদ মূল্যে (এনএভি) অ্যাসেট ম্যানেজারের কাছে ইউনিট ক্রয় বা বিক্রয় করতে পারে। ওপেন-এন্ড ফান্ডের ক্ষেত্রে, বিনিয়োগকারিদের ইউনিট ক্রয় বা বিক্রয়মূল্য নেট সম্পদ মূল্যের (এনএভি) কাছাকাছি হয় বলে, ক্লোজড-এন্ড ফান্ডের মত এর বাজারমূল্য ঝুঁকি থাকে না।

৩. মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের সাধারণ সুবিধা কী?

মিউচুয়াল ফান্ড বিনিয়োগের সুবিধা

  • ডাইভারসিফাইড পোর্টফলিও: মিউচুয়াল ফান্ডের বড় একটি সুবিধা হল এতে সুষ্ঠুভাবে ডাইভারসিফাইড পোর্টফলিও তৈরি করা যায়- যা বিনিয়োগের ঝুঁকি উল্লেখযোগ্যহারে কমিয়ে দেয়। সাধারনভাবে, একজন বিনিয়োগকারীর মূলধনের পরিমাণ খুব সীমিত বলে তা দিয়ে ডাইভারসিফাইড পোর্টফলিও তৈরি করা কঠিন হয়। কিন্তু মিউচুয়াল ফান্ড এই সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়। মিউচুয়াল ফান্ডে অনেক বিনিয়োগকারীর টাকা একত্রিত করে একটি বড় ফান্ড গঠন করা হয় যাতে করে সহজেই একটি ডাইভেরসিফাইড পোর্টফোলিও তৈরি করা যায়। মিউচুয়াল ফান্ডের অর্থ বিনিয়োগকারীদের আর্থিক প্রয়োজন ও ফান্ডের প্রকৃতির উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন স্টক, বন্ড ও অন্যান্য অনুমোদিত সিকিউরিটিগুলিতে বিনিয়োগ করা হয়।
  • বিনিয়োগের দক্ষ ব্যবস্থাপনা ও ঝুকি নিয়ন্ত্রন: মিউচুয়াল ফান্ডগুলি পেশাদার অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি দ্বারা পরিচালিত হয়। এসব অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির দক্ষ গবেষনাদল যথাযথভাবে অর্থনীতি এবং বাজার পরিস্থিতি বিশ্লেষণ করে তাদের জ্ঞান, দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে বিনিয়োগকারীর জন্য উপযুক্ত স্টক ও বন্ড সহ অন্যান্য বিনিয়োগখাত নির্ধারণ করে থাকেন। অন্যদিকে, একজন সাধারন বিনিয়োগকারীর ক্ষেত্রে প্রতিনিয়ত বাজারের অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে উপযুক্ত স্টক বাছাই করা খুবই কষ্টকর। কিন্তু একজন অ্যাসেট ম্যানেজার বিনিয়োগকারীদের পক্ষ হয়ে নির্দিষ্ট ফীয়ের বিনিময়ে (সীমিত ঝুঁকি গ্রহণের মাধ্যমে সর্বোচ্চ লাভ অর্জনের উদ্দেশ্য) ডাইভারসিফাইড পোর্টফলিও তৈরি করেন এবং তার কাঠামো পরিবর্তন (rebalancing) করেন যা বিনিয়োগকারীদের আর্থিক লক্ষ্য অর্জনে সাহায্য করে।
  • কর(ট্যাক্স) সুবিধা: মিউচুয়াল ফান্ডের সমস্ত আয় ট্যাক্স-মুক্তি ও ট্যাক্স-রেয়াত সুবিধার অন্তর্ভুক্ত। নিয়মানুসারে, মিউচুয়াল ফান্ডগুলির উপার্জনের একটি নির্দিষ্ট অংশ বিনিয়োগকারীদের মধ্যে ডিভিডেন্ড হিসাবে ভাগ করে দিতে হয় (এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ডের ক্ষেত্রে বার্ষিক অর্জিত উপার্জনের ৭০%), তার মধ্যে প্রতি বিনিয়োগকারীর জন্য প্রথম ২৫,000 টাকা পর্যন্ত ডিভিডেন্ড আয় ট্যাক্স-মুক্ত আয় বলে বিবেচিত হবে। অর্থাৎ কোন বিনিয়োগকারী, ১০ টাকায় একটি ওপেন-এন্ড ফান্ডের ইউনিট কিনে ১২ টাকায় অ্যাসেট ম্যানেজারের কাছে বিক্রি বা সমর্পণ করলে যে ২ টাকা লাভ হয় তা ঐ বিনিয়োগকারীর জন্য ট্যাক্স-মুক্ত থাকবে। এছাড়া, বিনিয়োগের পরিমাণের ভিত্তিতে বিনিয়োগকারীরা ট্যাক্স-রেয়াতের সুবিধা পেয়ে থাকেন। ট্যাক্স-রেয়াত সুবিধার ফলে বিনিয়োগকারীদের প্রদেয়  ট্যাক্স হ্রাস পায় যা তাদের ট্যাক্স-লায়বিলিটি উল্লেখযোগ্য হারে কমিয়ে দেয়।
  • আইপিও সাবস্ক্রিপশন: বাংলাদেশের পুজিবাজারের প্রেক্ষিতে, সাধারনভাবে এসব আইপিও খুবই লাভজনক, কিন্তু সাধারন বিনিয়োগকারীরা শুধুমাত্র লটারির মাধ্যমে আইপিওতে আবেদন করতে পারে। যেহেতু, লটারিতে অল্প কিছু বিনিয়োগকারীর আবেদন গৃহীত হয়- তাই বিপুলসংখক বিনিয়োগকারী এর সুবিধা নিতে পারে না। অন্যদিকে বাংলাদেশে মিউচুয়াল ফান্ডগুলির জন্য প্রতিটি আইপিও এর ১০% (দশ শতাংশ) সংরক্ষিত কোটা থাকে। তাই এসব ফান্ডের ইউনিট হোল্ডারগণ মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের মাধ্যমে সংরক্ষিত আইপিও সাবস্ক্রিপশন কোটা উপভোগের সুবিধা পায় যা অন্যথা সম্ভব হত না।
  • বিনিয়োগ-লেনদেনের ব্যয় কমানোঃ আমাদের দৈনন্দিন জীবনে যেমন বিভিন্ন জিনিসের পাইকারি মূল্য খুচরা মূল্য থেকে কম ঠিক একি ভাবে, যেহেতু মিউচুয়াল ফান্ডগুলি অনেক বেশি পরিমাণে সিকিউরিটিজ কেনাবেচা করে, সেহেতু এই ক্ষেত্রে সিকিউরিটিজ লেনদেনের খরচ ব্যক্তি বিনিয়োগকারীদের তুলনায় প্রতি ইউনিটের ভিত্তিতে অনেক কম হয়।
  • তারল্যসুবিধা/ যে কোনো সময় টাকা তুলে নেওয়ার সুবিধা: সাধারনত স্টক, বন্ড ইত্যাদির লেনদেন চাহিদা ও যোগানের উপর নির্ভর করে। বিক্রেতার দাম ও ক্রেতার দাম না মিললে কেনা বেচা হয় না। আবার ফিক্সড ডিপজিট বা সঞ্চয়পত্রের ক্ষেত্রে, নির্দিষ্ট সময়ের/ মেয়াদের আগে টাকা তুলে নিতে গেলে বিনিয়োগকারী পূর্বনিরধারিত সুদের হার থেকে বঞ্ছিত হন। কিন্তু  ওপেন-এন্ড মিউচুয়াল ফান্ডের ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীরা যে কোন সময়ে, চলমান নেট-সম্পদ-মূল্যে ইউনিটগুলি কেনাবেচা করতে পারে। এক্ষেত্রে লক্ষণীয় যে, পুজিবাজারে বিনিয়োগমাত্রই দীর্ঘমেয়াদী এবং মিউচুয়াল ফান্ড-এ দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগ সাধারণত স্বল্প-মেয়াদীর তুলনায় অধিক লাভ প্রদান করে।

৪. মিউচুয়াল ফান্ড কিভাবে  মুনাফা অর্জন করে?

একটি মিউচুয়াল ফান্ডের অধীনে সংগৃহীত সম্পদ বিভিন্ন স্টক/ বন্ড/ আইপিও/ অন্যান্য সিকিউরিটিতে  বিনিয়োগ করা হয়। এই সব  স্টক ও বন্ডের  বাজার মূল্য সময়ের সাথে পরিবর্তিত হয় এবং তা থেকে মিউচুয়াল ফান্ড অর্থ উপার্জন করে। এছাড়াও, মিউচুয়াল ফান্ড বিনিয়োগক্রিত  সিকিউরিটিজ থেকে ডিভিডেন্ড এবং মুনাফা পেয়ে থাকে যা ঐ ফান্ডের নেট-সম্পদ-মান সময়ের সাথে সাথে বাড়ায়।

৫. মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ কতটা লাভজনক?

একটি মিউচুয়াল ফান্ড থেকে প্রত্যাশিত লাভ সাধারণত দুটি বিষয়ের উপর নির্ভর করে

ক) অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির গুণগতমান/ অ্যাসেট ম্যানেজারের দক্ষতা; এবং

খ) অন্তর্নিহিত বিনিয়োগ কৌশল বা পোর্টফোলিও (যা ফান্ড এবং পোর্টফোলিও বিবরনীতে উল্লেখ থাকে) । সাধারণত বাংলাদেশে যথাযথভাবে পরিচালিত ফান্ডের দীর্ঘমেয়াদী বার্ষিক আয় ১৫% এরও বেশি হওয়ার রেকর্ড রয়েছে। তবে মনে রাখা দরকার, অতীত ফলাফল কখনই ভবিষ্যত-ফলাফলের নিশ্চয়তা প্রদান করে না। মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ পুজিবাজার ঝুঁকি-সংবলিত; তাই, মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করলে লাভ হবেই এমন কোন নিশ্চয়তা নেই।

৬. মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ কতটা ঝুঁকিপূর্ণ?

প্রত্যেকটি মিউচুয়াল ফান্ড একটি পৃথক আইনি সত্তা হিসাবে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)-এর সাথে নিবন্ধিত হয়, যার আর্থিক কার্যক্রম প্রতি বছরে একটি স্বাধীন/ ইন্ডীপেন্ডেন্ট অডিটর দ্বারা নিরিক্ষিত হয়। প্রতিটি মিউচুয়াল ফান্ডের  একটি  ট্রাস্টি রয়েছে, যেগুলার  বেশিরভাগই স্বনামধন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির (ব্যাংক, বীমা, নন-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠান) মধ্য  থেকে বাছাই করে নির্বাচিত। এইসব প্রতিষ্ঠান প্রতিনিয়ত বিনিয়োগকারীদের স্বার্থে মিউচুয়াল ফান্ডের কার্যক্রম লক্ষ্য/ নিয়ন্ত্রন করে। একটি কাস্টোডিয়ান প্রতিষ্ঠানও আছে, যা নিশ্চিত করে যে মিউচুয়াল ফান্ডের অধীনে সমস্ত সম্পত্তি নিরাপদে গচ্ছিত আছে।  বিএসইসির মিউচুয়াল ফান্ড বিধিমালা ২০০১ অনুযায়ী,  অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিদের তাদের কাজের  বিস্তারিত তথ্য এবং যৌক্তিকতা  বিএসইসি এবং ফান্ড ট্রাস্টি উভয়কে সময়ে সময়ে প্রতিবেদন হিসেবে পাঠাতে বাধ্য থাকে।  

উদাহরণস্বরূপ, এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ডের জন্য, এড্‌জ আসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি (এএমসি) প্রতি বৃহস্পতিবার তাদের ফেসবুক পেইজ (https://www.facebook.com/EDGEAMC/) ও ওয়েবসাইটে (https://www.EDGEAMC.com/) এবং প্রতি রবিবারে ফাইন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসে প্রতি ইউনিটের নেট-সম্পদ-মূল্য (এনএভি) প্রকাশ করে । আমরা নিয়মিত ট্রাস্টির কাছে পোর্টফোলিও বিবরণী জমা দেই এবং ত্রৈমাসিকে আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করি। আমাদের সমস্ত কার্যক্রম  এবং ফলাফল সম্পূর্ণভাবে স্বচ্ছ এবং নিরীক্ষক, ট্রাস্টি এবং কাস্টোডিয়ানের মত পেশাদার সংস্থা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত ও যাচাইকৃত।

৭ . মিউচুয়াল ফান্ডে সর্বনিম্ন বিনিয়োগ এর পরিমাণ কত?

ব্যক্তি-বিনিয়োগকারীদের জন্য বিনিয়োগের সর্বনিম্ন পরিমাণ ৫,০০০ টাকা এবং প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারির জন্য বিনিয়োগের সর্বনিম্ন পরিমাণ ৫০,০০০ টাকা।

৮. পরিচালনা ফি কত? অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিগুলো কিভাবে মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগকারীদের থেকে ফি চার্জ করে?

অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি বার্ষিক পরিচালনা ফি উপার্জন করে যা মিউচুয়াল ফান্ডের মোট সম্পদ বা আকারের একটি নির্দিষ্ট অংশ(শতকরা পরিমাণ) হয়ে থাকে।  বিএসইসির মিউচুয়াল ফান্ড বিধিমালা, ২০০১, নীচের হিসাবে সম্পদ ব্যবস্থাপনা ফি নির্ধারণ করেছেঃ

ফান্ডে অন্তর্ভুক্ত সম্পদের পরিমাণ(কোটি টাকা)

বার্ষিক পরিচালনা ফি (অন্তর্ভুক্ত সম্পদের % হিসেবে)

<৫

২.৫ % (বাৎসরিক)

৫-২৫

২.০ % (বাৎসরিক)

২৫-৫০

১.৫ % (বাৎসরিক)

>৫০

১.০ % (বাৎসরিক)

মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগকারীদের আলাদাভাবে ফি দিতে হয় না – উল্লেখিত ফি কেটে রেখেই, প্রতি সপ্তাহে ইউনিটের নেট-সম্পদ-মূল্য প্রকাশ করা হয়। কোন খাতে ফান্ড থেকে কি পরিমান ব্যয় হল, তা ত্রৈমাসিক এবং বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদনে বিস্তারিতভাবে উল্লেখ থাকে।

৯. মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করে আমি কিভাবে মুনাফা অর্জন করতে পারি?

একটি মিউচুয়াল ফান্ডের জন্য যে টাকা সংগ্রহ করা হয়, তা প্রয়োজনীয় গবেষণার পর বিভিন্ন স্টক,বন্ড ও অন্যান্য সিকিউরিটিজে বিনিয়োগ করা হয়। পরবর্তীতে, সময়ের সাথে সাথে এই স্টক বা বন্ডগুলোর দাম বৃদ্ধি পায়। এভাবে স্টক বা বন্ডের দাম বৃদ্ধি পেলে ফান্ডের অন্তর্গত মূলধনের মুল্যও বৃদ্ধি পায়। তবে এমন নিশ্চয়তা নেই যে বিনিয়োগক্রিত শেয়ার-এর মুল্য সব সময় বৃদ্ধি পাবে। স্টক বা বন্ডের মুল্য কমেও যেতে পারে। সেই ক্ষেত্রে মিউচুয়াল ফান্ডের মুল্য কমে বিনিয়োগকারীর আর্থিক ক্ষতিও হতে পারে।

ধরুন একটি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি ১০ জন বিনিয়োগকারী থেকে জনপ্রতি ১০ লাখ টাকা নিয়ে মোট ১ কোটি টাকার একটি মিউচুয়াল ফান্ড খুলল। শুরুতে এই ফান্ডের মোট মুল্য ১ কোটি টাকা এবং প্রত্যেকে বিনিয়োগকারী এই ফান্ডের শতকরা ১০ ভাগের মালিক। পরবর্তীতে একজন অ্যাসেট ম্যানেজার নিজের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে গবেষণার মাধ্যমে উপযুক্ত স্টক ও বন্ডে টাকাগুলো বিনিয়োগ করেন। সময়ের সাথে ওই ফান্ডের অন্তর্ভুক্ত শেয়ার ও বন্ডগুলোর দাম বৃদ্ধি পেলে যদি ১ কোটি ২০ লাখ হয়, তবে প্রত্যক বিনিয়োগকারি এখন ১২ লাখ টাকার মালিক হয়ে যাবেন। কেননা প্রত্যেকে ফান্ডটির ১০% এর মালিক ছিলেন। তাই ফান্ডটির মূল্য বেড়ে যাই হোক না কেন, বিনিয়োগকারী সব সময় তার ১০% এর মালিক থাকবেন।সুতরাং, এই মিউচুয়াল ফান্ডটিতে বিনিয়োগের মাধ্যমে প্রত্যেক বিনিয়োগকারী ২ লাখ টাকা লাভ পেলেন। বোঝানোর সুবিধার্থে এখানে ট্যাক্সের হিসেব বাদ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে, ফান্ডের অর্জিত মুনাফা থেকে ট্যাক্স বাদ দিয়েই বিনিয়োগকারী তার লাভের অংশ পাবেন।

১০. সমর্পণ/ বিক্রির ক্ষেত্রে কি অতিরিক্ত ফি প্রযোজ্য? 

এড্‌জ অ্যাসেট ম্যানাজমেন্ট-এর মিউচুয়াল ফান্ডগুলো সমর্পণ/ বিক্রির ক্ষেত্রে কোন অতিরিক্ত ফি চার্জ করছে না। এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট নেট-সম্পদ-মূল্যেই কেনা বেচা করা হচ্ছে।

১. নিবন্ধনের জন্য কি কি ডকুমেন্টস প্রয়োজন?

নথি

পরিমাণ

ইউনিট হোল্ডারের পূরণকৃত সংশ্লিষ্ট ফান্ডের নিবন্ধন ফর্ম

০১

আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয়পত্রের/ পাসপোর্টের কপি

০১

মনোনীত ব্যক্তির জাতীয় পরিচয়পত্রের/ পাসপোর্টের কপি

০১

আবেদনকারীর পাসপোর্ট আকারের ফটোগ্রাফ

০২

মনোনীত ব্যক্তির  পাসপোর্ট আকারের ফটোগ্রাফ

০১ (আবেদনকারীর দ্বারা  স্বত্তায়িত)

আবেদনকারীর বিও’র স্বীকৃতি / পোর্টফোলিও বিবরণী

০১

আবেদনকারীর ই-টিআইএন সার্টিফিকেটের কপি

০১

আবেদনকারীর ফাঁকা চেক লিফ / ব্যাংক বিবরণীর কপি

০১

 

. এড্‌জ অ্যাসেট ম্যানাজমেন্ট-এর অফিসে না এসে অন্য কোন ভাবে ফান্ড সাবস্ক্রাইব/ বিনিয়োগ করা যাবে কি?

হ্যাঁ, পুরো প্রক্রিয়া অনলাইন সম্পন্ন করা যাবে। আমাদের ওয়েবসাইটের ‘Invest now’ বা “এখনই বিনিয়োগ করুন” বিভাগে একটি অনলাইন ফর্ম পাওয়া যায়। ফর্মটি  পূরণ করে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস আপলোড করতে হবে।

৩. মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের জন্য  বিও অ্যাকাউন্ট এবং ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকা কি বাধ্যতামূলক?

হ্যাঁ। মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের জন্য বিও অ্যাকাউন্ট এবং ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকা বাধ্যতামূলক।

৪. বিও অ্যাকাউন্ট খোলার প্রক্রিয়া কি?

দেশের যেকোনো একটি  ব্রোকারেজ হাউসে  যোগাযোগ  করে সংশ্লিষ্ট ফর্মগুলি পূরণ করে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট  প্রদানের মাধ্যমে অ্যাকাউন্ট খোলা যেতে পারে। এছাড়া, আপনি যদি আমাদের প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট সরবরাহ করেন তবে আমরা আপনার পক্ষ থেকে প্রক্রিয়াটি পরিচালনা করতে পারি। ব্রোকারেজ হাউস প্রতি বছর একটি মেইন্টেনেন্স ফি চার্জ করে যা সাধারণত ৫০০-১,৫০০ টাকা হয়ে থাকে।

৫. একটি বিও অ্যাকাউন্ট  খুলতে কি ডকুমেন্ট প্রয়োজন?

বিও অ্যাকাউন্ট খুলতে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট নিচে তালিকাভুক্ত করা হল । তবে ব্রোকারেজ হাউস ভেদে সামান্য পার্থক্য থাকতে পারে।

                                     ডকুমেন্ট

                       পরিমাণ

আবেদনকারীর পূরণক্রিত রেজিস্ট্রেশান(নিবন্ধন) ফর্ম

০১

আবেদনকারীর এনআইডি / পাসপোর্টের কপি

০১

নমিনীর এনআইডি / পাসপোর্টের কপি

০১(আবেদনকারীর দ্বারা স্বত্তায়িত)

আবেদনকারীর পাসপোর্ট সাইজ ফটো

০৩

নমিনীর পাসপোর্ট সাইজ ফটো

০২ (আবেদনকারীর দ্বারা স্বত্তায়িত)

 আবেদনকারীর ফাঁকা চেক লিফ / ব্যাংক বিবরণীর কপি

০১

 

৬. ই-টিআইএন সার্টিফিকেট থাকা কি বাধ্যতামূলক?

না । তবে ই-টিআইএন সার্টিফিকেট থাকলে বিনিয়োগকারী কর সুবিধা পায়। ই-টিআইএন সার্টিফিকেট থাকলে মিউচুয়াল ফান্ডের ডিভিডেন্ডের উপর ১০% ট্যাক্স দিতে হয়। অন্যথায় (ই-টিআইএন সার্টিফিকেট না থাকলে), ডিভিডেন্ডের উপর ১৫% ট্যাক্স চার্জ করা হয়।

৭. মিউচুয়াল ফান্ডে টাকা জমা দেওয়ার নিয়ম কি?

নিচের যে কোন উপায়ে আপনি এড্‌জ মিউচুয়াল ফান্ডে টাকা জমা দিতে পারবেনঃ

  • “EDGE Bangladesh Mutual Fund” এর নামে চেক বা পে-অর্ডার ইস্যু করতে হবে

অথবা,

  • আপনি বিইএফটিএন স্থানান্তরের মাধ্যমেও সাবস্ক্রাইব করতে পারেন। বিইএফটিএন স্থানান্তরের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য নিচে দেওয়া হল-

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নাম: EDGE BANGLADESH MUTUAL FUND

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর: 1501 2040 0292 5006

শাখা: গুলশান

রাউটিং নম্বর: 060261726

ব্র্যাক ব্যাংক লি:

৮. মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিটের ক্রয়/ বিক্রয় মূল্য কিভাবে নির্ধারিত হয়?

এড্‌জ অ্যাসেট ম্যানাজমেন্ট পরিচালিত মিউচুয়াল ফান্ডগুলো সপ্তাহ-শেষে প্রকাশিত নেট-সম্পদ-মানে (Net Asset Value) কেনা বেচা করা যায়।

এক্ষেত্রে, ক্রয়-বিক্রয় মূল্য প্রতি বৃহস্পতিবারে অনলাইনে প্রকাশিত হয় এবং প্রতি রবিবার দৈনিক ফাইনেন্সিয়াল এক্সপ্রেসে রিপোর্ট করা হয়। বৃহস্পতিবারে উল্লেখিত মূল্য  পরবর্তী সপ্তাহে রবিবার থেকে বুধবার কার্যকর মূল্য থাকবে।  বৃহস্পতিবার কোন কেনাবেচা হয় না।

৯. মিউচুয়াল ফান্ড সমর্পণ বা নগদীকরণের প্রক্রিয়া কী?

মিউচুয়াল ফান্ড সমর্পণের জন্য বিনিয়োগকারীকে একটি ইউনিট-রিপার্চেজ ফর্ম পূরণ করে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিকে দিতে হবে এবং একটি সিডিবিএল ট্রান্সফার রিকুয়েস্ট ফর্ম পূরণ করে সংশ্লিষ্ট ব্রোকারেজ হাউসে জমা দিতে হবে। ব্রোকারেজ হাউস তারপর সিডিবিএলের সাথে যোগাযোগ করবে এবং নিশ্চিতকরণের জন্য অপেক্ষা করবে। নিশ্চিতকরণের পর, বিনিয়োগকারীর নির্দেশানুযায়ী, চেক বা বিইএফটিএন ট্রান্সফারের মাধ্যমে, কমপক্ষে ৩ কার্যদিবসের মধ্যে বিনিয়োগকারীকে অর্থ প্রদান করা হয়।

১০. এন্ট্রি লোড এবং এক্সিট লোড কি?

কিছু কিছু মিউচুয়াল ফান্ড বিনিয়োগের শুরুতে অর্থাৎ প্রাথমিক বিনিয়োগের সময় অতিরিক্ত ফি চার্জ করে যা  এন্ট্রি লোড নামে পরিচিত। একইভাবে, বিনিয়োগকারী তার ইউনিট সমর্পণ করে টাকা উঠিয়ে নেওয়ার সময় আরেকটি অতিরিক্ত ফি দিতে হতে পারে- যা এক্সিট লোড নামে পরিচিত। এড্‌জ  বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ড কোন এন্ট্রি বা এক্সিট লোড চার্জ করেনা।

১১. বিনিয়োগের পরে লক-ইন পিরিয়ড কতদিন?

এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কোন লক ইন পিরিয়ড নেই। বিনিয়োগকারীগণ যেকোন সময় তাদের ইউনিট সমর্পণ করতে পারে। তবে ফান্ডে বিনিয়োগ করে ইতিবাচক বিনিয়োগ ফলাফল পাওয়ার জন্য, দীর্ঘমেয়াদে (কমপক্ষে ১ বছরের বেশি সময়ের জন্য) বিনিয়োগের কোনো বিকল্প নেই।

১২. বিক্রিত ইউনিট এর টাকা পেতে কত দিন অপেক্ষা করতে হয় ?

তিন থেকে সাত কার্যদিবস ।

১. আপনাদের  ডিভিডেন্ড পলিসি কি?

এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ড, বার্ষিক অর্জিত আয়ের ৭০% ডিভিডেন্ড হিসাবে ঘোষণা করে । বিনিয়োগকারীরা নগদ ডিভিডেন্ড নিতে পারে অথবা ক্রমবর্ধমান বিনিয়োগ পরিকল্পনা (সিআইপি) তে বিনিয়োগ করতে পারে যা বিনিয়োগকারীর লেনদেনের খরচ কমায়। ক্রমবর্ধমান বিনিয়োগ পরিকল্পনায় (সিআইপি), ডিভিডেন্ড হতে আয়কর বাদ দেওয়ার পর যা থাকে তা পুরনরায় নতুন ইউনিট কেনার জন্য ব্যবহার করা হয়, যার ফলে বিনিয়োগকারীর মালিকানাধীন মোট ইউনিটের পরিমাণ বৃদ্ধি পায় এবং ফলে বিনিয়োজিত টাকার পরিমাণও বেড়ে যায়। 

২. সিআইপি কি?

একজন বিনিয়োগকারী নগদ ডিভিডেন্ড গ্রহণের বিকল্প হিসাবে ক্রমবর্ধমান বিনিয়োগ পরিকল্পনা (সিআইপি) বেছে নিতে পারেন। এই ক্ষেত্রে ডিভিডেন্ড হতে আয়কর বাদ দেওয়ার পর যা থাকে তা পুরনরায় নতুন ইউনিট কেনার জন্য ব্যবহার করা, যার বিনিয়োগকারীর মালিকানাধীন মোট ইউনিটের পরিমাণ বৃদ্ধি পায় এবং ফলে বিনিয়োজিত টাকার পরিমাণও বেড়ে যায়। সংক্ষেপে বলা যায়, সিআইপি-সাবস্ক্রাইবকারী ইউনিট হোল্ডারগণ ফান্ডের নগদ ডিভিডেন্ড ঘোষণার পর নগদ উত্তোলনের পরিবর্তে অতিরিক্ত মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিট পায়।

৩. ক্লোসড পিরিয়ড কি?

এই সময় সকল ধরণের লেনদেন বন্ধ থাকে। এই সময় ফান্ডের যাবতীয় হিসাবনিকাশ ও ফিনাঞ্চিয়াল রিপোর্টগুলির প্রস্তুতি ও নিরীক্ষা করা হয়। ডিভিডেন্ড বিতরণ প্রক্রিয়াও এই সময় শুরু হয়। এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ডের ক্ষেত্রে, জানুয়ারী মাস- ক্লোসড পিরিয়ড হিসেবে বলবত হয়।

৪. ডিভিডেন্ড পাওয়ার জন্য কতদিন  অপেক্ষা করতে হবে?

ডিভিডেন্ড ঘোষণার ৪৫ দিনের মধ্যে ডিভিডেন্ড বিতরণ করা হয়। 

১. এসআইপি কি?

সিস্টেম্যাটিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান (এসআইপি)একটি নিয়মতান্ত্রিক কিস্তিতে বিনিয়োগ প্রক্রিয়া। এক্ষেত্রে  বিনিয়োগকারীরা নিয়মিত নির্দিষ্ট সময় (মাসিক, ত্রৈমাসিক, বার্ষিক ইত্যাদি) পর পর  পূর্বনির্ধারিত পরিমাণ অর্থ কিস্তিতে বিনিয়োগ করতে থাকে। বিনিয়োগকারী সর্বনিম্ন ১,০০০ টাকা কিস্তিতে এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ড-এ এসআইপি-বিনিয়োগ শুরু করতে পারেন।

২. এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ড-এ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে  কি এসআইপি প্রযোজ্য?

হ্যাঁ। আমরা এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের জন্য এসআইপি অফার করি। এসআইপি এর মাধ্যমে বিনিয়োগের জন্য, বিনিয়োগকারীকে প্রতি মাসে  ১০ তারিখে কিস্তি প্রদান করতে হবে।

৪. এসআইপি সুবিধা কী?·        

  • এসআইপি  একটি চলমান বিনিয়োগ প্রক্রিয়া। তাই এতে নিয়মিত বিনিয়োগের অভ্যাস গড়ে ওঠে।
  • এসআইপির ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীর সকল অর্থ একই সাথে বিনিয়োগ না করে সময়ের সাথে ভাগ ভাগ করে বিনিয়োগ করা হয়। এতে করে বিনিয়োগকারীর সমস্ত অর্থ একই সাথে ঝুঁকিতে পড়েনা। উদাহরনঃ ধরুন আপনার কাছে এক লক্ষ টাকা আছে যা আপনি এককালীন বিনিয়োগ করে দুইটি কোম্পানির শেয়ার কিনলেন। একমাস পর যে কোনো কারনে কোম্পানি দুটির শেয়ারের দাম কমে গেল। এতে করে আপনার পুরো এক লক্ষ টাকাই ঝুঁকিতে পড়ে গেল। কিন্তু তার পরিবর্তে আপনি যদি প্রতি মাসে দশ হাজার টাকা করে বিনিয়োগ করেন তাহলে আপনার প্রথম মাসের বিনিয়োগ ক্ষতির সম্মুখীন হলেও বাকি নব্বই হাজার টাকার বিনিয়োগ ঝুঁকি মুক্ত থাকবে। এবং শেয়ারের দাম যত কমতে থাকবে, আপনি কমমূল্যে তত বেশি শেয়ার কিনতে পারবেন। এভাবে প্রতিমাসে ১০,০০০ টাকা করে ১০ মাসে  মোট ১ লক্ষ্ টাকা বিনিয়োগ করলে, আপনার গড় শেয়ার ক্রয়মূল্য কমে আসবে এবং আপনার বিনিয়োগের ঝুঁকি কমে আসবে। এটি এসআইপি-এর মাধ্যমে বিনিয়োগের একটি বড় সুবিধা।
  • স্বয়ংক্রিয়ভাবে ব্যাংক একাউন্ট থেকে টাকা মিউচুয়াল ফান্ডে স্থানান্তরের সুবিধা, লিকুইডিটি, এবং  ক্ষুদ্র কিস্তির (১০০০ টাকা) সুবিধা।
  • সীমিত আয়ের বা সীমিত সঞয়ের বিনিয়োগকারিদের জন্য আকর্ষণীয় বিনিয়োগ ব্যবস্থা।
  • দীর্ঘমেয়াদে বিনিয়োগের সার্বিক ঝুঁকি হ্রাস করে।
  • দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা বলে সময়ের সাথে লাভের পরিমাণ চক্রবৃদ্ধি হারে বাড়তে থাকে। এটি  বিনিয়োগকারীর দীর্ঘমেয়াদী আর্থিক পরিকল্পনা বাস্তবায়নের উত্তম সুযোগ।                                             

৪. এসআইপিতে কিভাবে বিনিয়োগ করবেন?

ধাপ  ১: প্রথমেই কিস্তির  আকার নির্ধারণ করতে হবে। কিস্তির পরিমাণ সর্বনিম্ন ১০০০/- টাকা থেকে   শুরু করে যে কোন পরিমাণ হতে পারে। আমরা নির্দিষ্ট আয়ের বিনিয়োগকারীদের মাসিক আয়ের  কমপক্ষে ১০% সঞ্চয় করতে পরামর্শ দিয়ে থাকি।

ধাপ ২: ইউনিট হোল্ডারের  দীর্ঘমেয়াদী আর্থিক লক্ষ্য অনুযায়ী  মিউচুয়াল ফান্ড নির্বাচন করা

ধাপ ৩: এড্‌জ এএমসি লিমিটেড কোম্পানির ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট মিউচুয়াল ফান্ডের নিবন্ধন ফর্মটি পূরণ করে সংশ্লিষ্ট সমস্ত  ডকুমেন্ট জমা দেয়া (১১ নং প্রশ্নের উত্তর দ্রষ্টব্য)

ধাপ ৪: এরপর EDGE BANGLADESH MUTUAL FUND এর নামে চেক ইস্যু করতে হবে। এড্‌জ এএমসি লিমিটেড কোম্পানি, সাবস্ক্রিপশন প্রক্রিয়াটি সহজতর করার জন্য অটো-ডেবিট ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সেট আপ করতে ইউনিট হোল্ডারদের সহায়তা করে- এই জন্য ইউনিট হোল্ডারদের নিজের স্বাক্ষরিত বিইএফটিএন / অটো ডেবিট / সাধারণ নির্দেশনা ফর্ম জমা দিতে হবে।

ধাপ ৫: পরবর্তী তিন কার্যদিবসের মধ্যে ইউনিট  ইস্যু করে ইউনিট হোল্ডার কে পাঠানো হবে এবং এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিটগুলি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ইউনিট হোল্ডারদের বিও অ্যাকাউন্টে জমা দেওয়া হবে।

ধাপ ৬: ইউনিট হোল্ডারগণ প্রতিটি বৃহস্পতিবার বিনিয়োগ ব্যালেন্স সহ সাপ্তাহিক বিনিয়োগ বিবরণী পাবেন। ইউনিট হোল্ডারগণ নিয়মিত কার্যদিবসের যে কোন সময়ে এড্‌জ এএমসির কাছে তাদের লেনদেনের বিবরণী ডকুমেন্ট দেখার আবেদন করতে পারে।

৫. এসআইপির জন্য সর্বনিম্ন বিনিয়োগ পরিমাণ কত?

এসআইপির অধীনে ন্যূনতম বিনিয়োগের পরিমাণ ১০০০/- টাকা।

৬. এসআইপিতে বিনিয়োগের সর্বনিম্ন লট সাইজ কত?

এসআইপির অধীনে কোনও সর্বনিম্ন লট সাইজ নেই।

৭. এসআইপি এর কিস্তি পরিশোধের উপায়  কি?

প্রথম কিস্তির ক্ষেত্রে পেমেন্ট একটি চেক / পে অর্ডার / ডিমান্ড ড্রাফ্ট ব্যবহার করে করা যাবে। পরবর্তী কিস্তি  সরাসরি ডেবিট সুবিধা / অটো-ডেবিট / বিইএফটিএন স্থানান্তরের মাধ্যমে করা যেতে পারে।

৮. এসআইপি মেয়াদপূর্তির পরে কি হবে?

  • অটো-রিনিউয়াল: বিনিয়োগকারীগন মেয়াদপূর্তির পরে সহজেই এস আই পি রিনিউ করতে পারেন এবং বিনিয়োগকারীরা পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এটি অব্যাহত থাকবে।
  • সমর্পণ: এসআইপির ম্যাচিউরড অংশটি বিনিয়োগকারীর অ্যাকাউন্টে রাখা হবে। বিনিয়োগকারীর সিদ্ধান্ত অনুসারে পরে  তা তার ব্যাংক একাউন্টে স্থানান্তর করা যেতে পারে। নির্দেশ  কার্যকর করার জন্য আমরা ব্যক্তিগতভাবে বিনিয়োগকারীদের অনুস্মারক দিয়ে থাকি।
  • কোন অটো-রিনিউয়াল বা নগদীকরণ নয়: বিনিয়োগকারীদের এসআইপির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেও  বিনিয়োগ করতে পারেন। এই ক্ষেত্রে, ম্যাচিউরড বিনিয়োগ সমর্পণ না হওয়া পর্যন্ত নন -এসআইপি স্কিম হিসাবে গণনা করা হবে।

৯. এস আই পি কি আংশিকভাবে  সমর্পণ বা বিক্রি করা যায়?

হ্যাঁ। বিনিয়োগকারীরা আংশিকভাবে এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিটগুলিকে সমর্পণ করতে পারে এবং মেয়াদ শেষ হওয়া পর্যন্ত এসআইপির বাকি অংশ চালিয়ে যেতে পারে।

১০. যৌথ বিনিয়োগকারীরা কি এসআইপিতে বিনিয়োগ করতে পারে?

হ্যাঁ। যৌথ বিনিয়োগকারীরা একই পদ্ধতিতে  সাবস্ক্রাইব করে এসআইপিতে বিনিয়োগ করতে পারেন।

১১. প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা কি এসআইপিতে বিনিয়োগ করতে পারে?

হ্যাঁ। প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের জন্য ন্যূনতম কিস্তি ১০,০০০ টাকা।

১২. মাসের ১০ তারিখ সপ্তাহের ছুটির দিন বা অন্য  ছুটির দিন হলে কী হবে?

অটো-ডেবিট সেই সপ্তাহের ক্রয় মূল্যে পরের কার্যদিবসে সঞ্চালিত হবে।

১৩. সর্বাধিক এসআইপি কিস্তি কত?

এক রেজিস্ট্রেশন নম্বরের অধীনে ব্যাক্তিগত বিনিয়োগকারীর জন্য সর্বাধিক মাসিক কিস্তির পরিমাণ ১,০০০,০০০/- টাকা । প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগের  জন্য এই ধরনের কোন সীমাবদ্ধতা নেই।

১৪. কিভাবে এসআইপি বন্ধ করতে হয়?

বিনিয়োগকারীকে পরবর্তী কিস্তি প্রদানের তারিখের  অন্তত ৫ কার্যদিবস আগে এসআইপি বন্ধ করার বিষয়ে অ্যাসেট ম্যানেজারকে একটি আবেদন প্রদান করতে হবে।

১৫. মেয়াদপূর্তির আগে এসআইপি বন্ধ করার জন্য কোন ফি বা জরিমানা হবে?

মেয়াদপূর্তির আগে এসআইপি বন্ধ করার জন্য আমরা কোন অতিরিক্ত ফি চার্জ করিনা।

১৬. বিনিয়োগকারী সময় মত কিস্তি পরিশোধ করতে ব্যর্থ হলে কী হবে?

এমন অপারগতার জন্য কোন জরিমানা নেই । পরবর্তী কিস্তি আদায়ের সাথে সাথে অ্যাকাউন্টটি আবার সচল হয়ে যাবে।

১৭ বিনিয়োগকারী কি তার কিস্তি টপ আপ করতে পারবেন?

বিনিয়োগকারীরা তাদের কিস্তি টপ আপ করতে পারবেন। তবে ঘন ঘন এবং বেশি অংকের টাকা  টপআপ না করাই উত্তম। কেননা , এটি এস আই পির রিস্ক/রিটার্ন ব্যালেন্সের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্যগুলি বিকৃত করতে পারে।

১৮. বিনিয়োগকারী এস আই পির মেয়াদপূর্তির আগে কি তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য পরিবর্তন করতে পারে?

হ্যাঁ, তবে সেই ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীকে এস আই পির  মেয়াদপূর্তির তারিখের কমপক্ষে ৫ কার্যদিবস আগে ব্যাংকের তথ্য পরিবর্তন করতে হবে।

১. আমি কি অন্য একাউন্টে ইউনিট স্থানান্তরিত করতে পারি?

ফান্ডের ইউনিটগুলি উত্তরাধিকারসুত্রে, উপহার হিসেবে অথবা আইনের নির্দিষ্ট নিয়মের মাধ্যমে অন্য অ্যাকাউন্টে স্থানান্তরিত করা যায়।

২. মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট কিনলে প্রমাণ স্বরূপ আমাকে কি ডকুমেন্ট দেওয়া হয়?

মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট কিনলে বিনিয়োগকারীরা একটি প্রাপ্তি স্বীকারপত্র পায় যা কোম্পানির অনুমোদিত অন্তত একজন ব্যক্তি দ্বারা স্বাক্ষরিত থাকে। সিডিবিএল আপনার ক্রয়ক্রিত ইউনিটগুলি  ব্রোকারকে স্থানান্তরিত করার পর ব্রোকার ক্রয়কৃত ইউনিট আপনার বিও অ্যাকাউন্টে জমা দেয় এবং আপনি আপনার বিও স্ট্যাটমেন্টে  ইউনিটগুলি দেখতে পারেন।

৩. মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কি কোন নির্দিষ্ট সময়সীমা আছে?

বিভিন্ন মিউচুয়াল ফান্ডের লক-ইন পিরিয়ড থাকলেও, এড্‌জ বাংলাদেশ মিউচুয়াল ফান্ডের কোনও লক-ইন পিরিয়ড নেই। যার অর্থ বিনিয়োগকারী যে কোনও সময় মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট কিনতে এবং বিক্রয় করতে পারে।

৪. মিউচুয়াল ফান্ডের নেট সম্পদ মূল্য(এনএভি) কি তার  বর্তমান বাজার মূল্য থেকে ব্যতিক্রম হতে পারে?

মিউচুয়াল ফান্ডের নেট সম্পদ মূল্য(এনএভি) ওই ফান্ডের অন্তর্ভুক্ত সম্পদগুলির বাজার মূল্যের সাথে খুব নিবিড়ভাবে সম্পর্কযুক্ত। তাই, যদি সম্পদের বাজার মূল্য হ্রাস পায়, তবে ইউনিট প্রতি এনএভি ও হ্রাস পেতে পারে এবং পূর্ব মূল্যের নিচে নেমে আসতে পারে। তবে বাংলাদেশের মতো ক্রমবর্ধমান অর্থনীতিতে রিস্কি অ্যাসেট  শ্রেণীগুলির দীর্ঘমেয়াদী পারফরম্যান্স সাধারণত ইতিবাচক হয় ।

৫. এন্ট্রি ও  এক্সিট ফি হিসাবে আপনারা কত চার্জ করেন?আমরা কোন এন্ট্রি বা এক্সিট ফি চার্জ করি না

৬. মিউচুয়াল ফান্ডের  একটি ইউনিট বলতে কি বোঝায়?

মিউচুয়াল ফান্ডের মালিকানা প্রতিনিধিত্বকারী শেয়ারগুলিকে এক একটি ইউনিট বলা হয়।

৭. কিভাবে এনএভি হিসাব করা হয়?

এনএভি হিসাব করার জন্য নিম্নোক্ত সূত্র ব্যবহার করা হয়ঃ

  • এনএভি = নেট অ্যাসেট(সম্পদ) – লায়বিলিটি(দায়)
  • এনএভি প্রতি ইউনিট =

নেট অ্যাসেট (সম্পদ) = ভল্টে রক্ষিত সিকিউরিটিজের মূল্য + লিএনের কাছে রক্ষিত সিকিউরিটিজের মূল্য+ হাতে নগদ ক্যাশ +ব্যাংকে রক্ষিত ক্যাশ + সকল প্রাপ্য সিকিউরিটিজের মূল্য + বিক্রিত সিকিউরিটিজ হতে প্রাপ্য টাকা  + অগ্রিম কর + প্রাপ্য ডিভিডেন্ড (ট্যাক্স কর্তনের পর) + প্রাপ্য সুদ (ট্যাক্স কর্তনের পর)+ মুদ্রণ, প্রকাশন এবং স্টেশনারি খরচগুলির অ্যামরটাইজড মূল্য

লায়াবিলিটি (দায়)= সকল প্রদেয় সিকিউরিটিজের মূল্য + ক্রয়ক্রিত সিকিউরিটিজের প্রদেয় মূল্য+প্রদেয় ব্রোকারেজ এবং কাস্টোডিয়াল চার্জ + প্রদেয় ট্রাস্টি ফি + মুদ্রণ, প্রকাশনার এবং স্টেশনারি সম্পর্কিত  প্রদেয় চার্জ + বিলম্বিত পরিচালনা ফি, বার্ষিক ফি, অডিট ফি এবং সংরক্ষণ ফি।

৮. আপনারা কখন নেট সম্পদ মূল্য (এনএভি) প্রকাশ করেন?

এড্‌জ অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি প্রতি সপ্তাহান্তে এক দিন (যা বেশিরভাগ সময় বৃহস্পতিবার) কোম্পানির ওয়েবসাইট, ফেসবুক পেইজ ও লিঙ্কডইন পেইজ এবং প্রতি রবিবার দ্য ফাইন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেস-এ নেট সম্পদ মূল্য (এনএভি) প্রকাশ করে। এছাড়াও, এড্‌জ অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি একটি ইনভেস্টমেন্ট অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট বা বিনিয়োগ বিবরণী পাঠায় যা ফান্ডের অন্তর্ভুক্ত সম্পদের বিবরণী ও মার্কেটের অবস্থা সম্পর্কে তথ্য প্রদান করে।

৯. কে বা কারা মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে পারেন?

স্থানীয় ও বিদেশী সকল ব্যক্তি এবং সংস্থা মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে পারে।

১০. আমি কিভাবে জানব আমার টাকা কোথায় বিনিয়োগ করা হয়েছে?

প্রত্যেক অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি তাদের ওয়েবসাইটে বার্ষিক, অর্ধ-বার্ষিক ও ত্রৈমাসিক রিপোর্ট প্রকাশ করে যেখানে সংগ্রহিত অর্থ কোথায় বিনিয়োগ করা হয়েছে তার বিবরণ দেওয়া থাকে। প্রকাশিত রিপোর্ট থেকে বিনিয়োগকারীরা প্রয়োজনীয় তথ্য জানতে পারবেন।

Close Menu
Shares